• ১ বৈশাখ ১৪২৮, বৃহস্পতিবার
  • 15 April 2021, Thursday
”রগড়ে দেবো”র মোক্ষম জবাব অভিনেতা অনির্বাণের অনির্বাণ ভট্টাচার্য

”রগড়ে দেবো”র মোক্ষম জবাব অভিনেতা অনির্বাণের

ওয়েব ডেস্ক প্রতিনিধি

Updated On: 08 Apr 2021 02:20 am

তাঁর লেখা গান 'নিজেদের মতে, নিজেদের গান' এ গলা মিলয়েছেন অনেকে। এই মিউজিক ভিডিওতে  রয়েছেন আরও অনেকে, আর গানটি লিখেছেন এ সময়ের পরিচিত অভিনেতা অনির্বাণ ভট্টাচার্য । দীর্ঘ দিন ধরেই তিনি বামপন্থী ঘরানার কথা বলে আসছেন। তাঁর লেখাগুলোতেও সেই ছাপ প্রকট।



তাঁর অসাধারণ একটি লেখা গান হিসেবে  রাজ্য-রাজনীতিতে ছড়িয়ে পড়েছে “আমি অন্য কোথাও যাব না, আমি এই দেশেতেই থাকব” শীর্ষক গানটি। 

যা শুনে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ  সংবাদ প্রতিদিন ফেসবুক লাইভে বলেছিলেন শিল্পীরা রাজনীতি করতে এলে তিনি 'রগড়ে' দেবেন। সারা রাজ্য জুড়ে এই কথাতে তোলপাড় হয়, সাধারণ মানুষ থেকে বিশিষ্ট মানুষজন এই কথার তীব্র বিরোধিতায় সোচ্চার হন। 

এবার সেই  সংবাদ প্রতিদিন ফেসবুক লাইভেই তাঁর আক্রমনাত্মক জবাব  দিলেন অনির্বাণ।


দিলীপ ঘোষের 'রগড়ে দেব' মন্তব্যে কি ভয় পেলেন? প্রশ্নের উত্তরে অনির্বাণ জানান ভয় তিনি পাননি। এরপরই অভিনেতা বলেন, "রগড়ে যদি দেন, রগড়ে দেবেন, কী আর করা যাবে? অভিনেতাদের সত্যিই রগড়ে দেওয়া যায়। কারণ অভিনেতাদের তো সেই অর্থে কোনও রেজিমেন্টেশন নেই, এই নেই, সেই নেই। আমরা এভাবেই ঘুরে বেড়াই। 

এখন আমরা একটা কথা বলি তার জন্য যদি আমাদের পরিণতিতে থাকে রগড়ে যাওয়া। তাহলে রগড়ে যেতে হবে কী করা যাবে?"

অবশ্য দিলীপ ঘোষের স্পষ্টবাদিতার প্রশংসাও করেন তিনি । 

নির্বাচনী আবহে অনেক তারকাই নিজেদের রাজনৈতিক রং বেছে নিয়েছেন। তবে অনির্বাণ কোনও রাজনৈতিক রং বাছতে নারাজ। এমনকী নিজেকে বামপন্থী বলতেও নারাজ অনির্বাণ। তাঁর মতে, সমাজ থেকেই অভিনয় কিংবা লেখার রসদ খুঁজে নেন শিল্পী, তাই সমাজের কাহিনি তাঁর সৃষ্টিতে প্রতিফলিত হবে। তাই রাজনীতিবিদদের পাশাপাশি শিল্পীদেরও সমাজের পরিস্থিতি নিয়ে বলার অধিকার থাকে বলে মত অনির্বাণের।


 অপরদিকে  অনির্বাণদের গানের জবাবে গান দিয়েই জবাব  বাবুল সুপ্রিয়, রুদ্রনীল ঘোষদের 

যাতে বলা হয় ‘তুমি অন্য কোথাও যেও না, তুমি এই দেশেতেই থাকো।’ গানটি তিনিও শুনেছেন বলে  জানান অনির্বাণ। তবে তাঁর খুব একটা  ভাল লাগেনি। 

মনে হয়েছে সৃষ্টিশীলতার একটু খামতি লেগেছে ।  

তাঁর ভাল লাগে না, রাজনৈতিক প্রভাবে টলিউডের বিভাজন। তাঁর মনে টলিউডের মতো আঞ্চলিক ইন্ডাস্ট্রির একজোট হয়ে থাকা উচিত । ২ মে অনেকেরই অনেক আশা থাকবে। অনির্বাণের কী আশা থাকবে? প্রশ্নের উত্তরে অভিনেতা জানান, ঘৃণার বদলে ভালবাসার জয় চান তিনি। 

তবে এ লড়াই কোনও নির্দিষ্ট দিনের নয় বলেই মত অভিনেতার। এ সংগ্রাম চিরন্তন  বলেই মনে করেন বাংলার জনপ্রিয়  অভিনেতা অনির্বাণ ভট্টাচার্যর।

Recent Comments:

Sanjiv Dutta 2021-04-11

রগড়ে দেওয়া, অনেক অর্থে ব্যবহার হয়। কথায় রোগ্রানও, কাজে রোগ্রনও, শারীরিক ভাবে, রগ্রানও, কত কি! আমি আম জনতা, সূর্তরাং, রগড় দেখা,ছাড়া, আর ভোট বাক্সে,তার প্রতিফলন ঘটানো ছাড়া, উপায় আছে কি?

Tfidib Roy 2021-04-10

Submitted separately

Leave a Comment: