• ১ বৈশাখ ১৪২৮, বৃহস্পতিবার
  • 15 April 2021, Thursday
শীতের সবজি সাজে, হায়দ্রাবাদি ভেজে... ছবি: লেখিকা।

শীতের সবজি সাজে, হায়দ্রাবাদি ভেজে...

সহেলী রায়

Updated On: 30 Oct 2020 12:04 am

রেসিপি: হায়দ্রাবাদি ভেজ

 

উমা সদলবলে কৈলাসে ফিরে যেতেই রোদের তেজ কমে নরম হয়ে এল। হালকা শীতের চাদর মুড়ে ভোর এসে দেখা দিল। এ আমেজ বড় আরামদায়ক। ত্বকে টান পড়লেই মনে পড়ে যায় মা, কাকিমাদের দুপুর জুড়ে ‘বসন্তমালতী’ বা ‘তুহিনার’ গল্প। কমলালেবুর কোয়ার মতো স্বচ্ছ রোদ পিঠে মেখে উল-কাঁটায় সোজা উলটোর ঘরকন্না। এখন সময়ে ব্যস্ততার প্রলেপ লেগে থাকে। ঘরকন্নার সংজ্ঞা বদলেছে সময়ের হাত ধরে। তবু স্মৃতিরা উঁকি মারলে মন ভালো হয়ে যায়। রঙিন লাগে পারিপার্শ্বিক। পাড়ায় পাড়ায় হেঁকে যাওয়া সবজিওয়ালার ভ্যান গাড়িতে চোখ আটকে যায়। রঙের মেলা লেগেছে যেন। রসুইঘরের বেতারযন্ত্র ডাক পাঠায়। পুজোগন্ডার দিনে অনেক আমিষ পদই তো হল, এবার শাকসবজির আসর বসুক শহর জুড়ে।

শহর বলতেই মনে পড়ে গেল হায়দ্রাবাদের কথা। একবছর পুজোয় ঘুরে এলাম সপরিবারে। সে শহরের অলি-গলিতে নবাবি খাবারের সুবাস। মন চনমন করে ওঠে জাফরানের গন্ধে। টার্কিশ এবং আরবি প্রভাব সরাসরি সমৃদ্ধ করেছে হায়দ্রাবাদের নিজস্ব খাদ্য সংস্কৃতিকে। সম্রাট কুতুব শাহর সাম্রাজ্যে হায়দ্রাবাদ শহরে স্থানীয় খানাপিনা নিয়ে যথেষ্ট চর্চা শুরু হয়। আর সেইসব খানাপিনা থেকেই জন্ম নেয় ‘হায়দ্রাবাদি’ স্টাইল। ‘নিজাম সিটি’ হিরে, মুক্তো, চারমিনারের মতোই বিখ্যাত খাদ্যপ্রেমিকদের কাছে, তার বিপুল খানা খাজানার জন্য। আজ তাহলে হয়ে যাক শীতকালীন সবজি দিয়ে ‘হায়দ্রাবাদি ভেজ’।

উপকরণ:

সব সেদ্ধ ১ কাপ করে: ফুলকপি, গাজর, ক্যাপসিকাম, বিনস, কড়াইশুঁটি

১ আঁটি: পালং শাক ব্লাঞ্চ করা

১/২ কাপ: টক দই ফেটানো

৩ চামচ: ফ্রেশ ক্রিম

১/২ কাপ: ছোট টুকরো করা পনির

২টো: মাঝারি সাইজ পিঁয়াজ

১ টা: টমেটো

৪ কোঁয়া: রসুন

২ টুকরো: আদা

আন্দাজমতো নুন-চিনি

অল্প তেজপাতা, মেথি, গোটা গরমমশলা, গোটা গোলমরিচ

পরিমাণমতো সাদা তেল

সামান্য হলুদ, লঙ্কা, জিরে, ধনে গুঁড়ো

এক চামচ শাহী গরম মশলা গুঁড়ো

 

প্রণালী:

প্রথমে প্যানে তিন চামচ সাদা তেল দিয়ে ওতে পিঁয়াজ কুচি, রসুন, আদা, টমেটো লাল করে ভেজে নিতে হবে। মিক্সিতে ব্লাঞ্চ করা পালং শাক, লাল করে ভাজা পিঁয়াজ কুচি, রসুন, আদা, টমেটো সামান্য নুন আর গোটা গোল মরিচ দিয়ে পেস্ট করে নিতে হবে। হায়দ্রাবাদি পেস্ট রেডি।

এবার প্যানে আবার তিন চামচ তেল গরম হলে তাতে তেজপাতা, মেথি, গোটা গরম মশলা সামান্য নাড়াচাড়া করে তেল থেকে এগুলো তুলে নিতে হবে। মনে রাখতে আমাদের শুধু স্মেলটুকু প্রয়োজন। এরপর ওই তেলে একে একে সেদ্ধ করা সব সবজি দিয়ে নাড়াচাড়া করে তাতে মশলার পেস্ট, সামান্য হলুদ, লঙ্কা, জিরে, ধনে গুঁড়ো মেশাতে হবে, ফেটানো টক দই, নুন মিষ্টি দিয়ে খানিক্ষণ নাড়লে মশলা থেকে তেল ছেড়ে আসবে। পনিরের টুকরো দিয়ে নেড়ে, শাহী গরম মশলা গুঁড়ো আর ফ্রেশ ক্রিম দিয়ে নামিয়ে নিতে হবে।

গরম গরম জমে যাবে রুটি বা পরোটা দিয়ে।

 

সবজির সঙ্গে এমন নবাবি মেলবন্ধন শীতের মৌতাত আরো গাঢ় করে তোলে। উৎসবের রেশ যেন থামতেই চায় না। চোখ বন্ধ করলেই একটাই অনুভূতি ধরা দেয়: ‘দিল গার্ডেন গার্ডেন’।

Recent Comments:

Leave a Comment: